বিপিএল ২০২২ : ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা

ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা ![ বিপিএল ২০২২ ] : দীর্ঘ দিন পর ক্রিকেটে মাশরাফি বিন মোর্তজার প্রত্যাবর্তনের ম্যাচ স্মরনীয় করে রাখতে পারলো না ঢাকা। সিলেটের কাছে ঢাকার হার ৭ উইকেটে। মিরপুরে টস জিতে ঢাকাকে ব্যাট করার আমন্ত্রণ জানায় সিলেট। দলীয় ৯ রানেই  দুই ওপেনার মোহাম্মদ শেহজাদ এবং তামিম ইকবালকে হারায় ঢাকা। দুই স্পিনার সোহাগ গাজী এবং মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ে শুরু থেকেই চাপে থাকে ঢাকার ব্যাটাররা। পাওয়ারপ্লের মধ্যেই  ৩ ব্যাটার প্যাভিলিয়নে ফিরলে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে ঢাকা।

ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা
ঢাকা বনাম সিলেট

জহুরুলের আউট হওয়ার পর ঢাকা অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ এবং ব্যাটার নাইম একটি পার্টনারশিপ কগড়ে দলকে খাদের কিনারা থেকে টেনে তোলার চেষ্টা করলেও দলীয় ৫৭ রানেই দুই  ব্যাটার নাইম শেখ এবং  রাসেলের উইকেট  হারায় ঢাকা। দলীয় ৬৬ রানেই অধিয়ানক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ ব্যাক্তিগত ৩৩ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরলে  বড় স্কোর করার সম্ভাবনা ক্ষীণ হয়ে যায় ঢাকার।

[ বিপিএল ২০২২ : ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা ]

শুভাগত হোম একটি ভালো স্টার্ট পেলেও নাজমুল ইসলাম অপুর বলে এলবিডাব্লিউ হয়ে বাক্তিগত ২১ রানে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান তিনি। শেষের দিকে রুবেল হোসেনের একটি চার এবং ছক্কার মারে ১০০ রান  স্পর্শ করতে পারে ঢাকা। ঢাকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৩ রান করেন অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ । সিলেটের পক্ষে সর্বোচ্চ ৪ উইকেট নেন বাহাতি স্পিনার নাজমুল ইসলাম অপু।

১০১ রানের সহজ লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা খারাপ হয়নি সিলেটের। সিলেটের ডেরায় প্রথম আঘাত হানেন দীর্ঘদিন পর ক্রিকেটে ফেরা মাশরাফি মোর্তজা। এরপর ওপেনার আনামুল হক বিজয়কে নিয়ে একটি কার্যকরী পার্টনারশিপ করেন অভিজ্ঞ ব্যাটার মোহাম্মদ মিথুন। দলীয় ৫২ রানে হাসান মুরাদের বলে তামিম ইকবালের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন মোহাম্মদ মিথুন। আউট হওয়ার আগে ব্যাটার আনামুল হক বিজয়ের সঙ্গে ৩৮ রানের একটি ম্যাচ জয়ী পার্টনারশিপ গড়েন তিনি।

3 1 ক্রিকেট গুরুকুল, GOLN১৫ বলে ১৭ রান করেন মিথুন।  মিথুনের আউটের পর অবশ্য কোনো অঘ্টন ঘটতে দেয়নি সিলেট। কলিন ইংগ্রামের সঙ্গে আনামুল হক বিজয়ের ৪০ রানের পার্টনারশিপে ম্যাচটি পুরোপুরি নিজদের মুষ্টিতে নিয়ে নেয় সিলেট। সিলেটের জয়ের জন্য যখন মাত্র ২ রান প্রয়োজন ঠিক তখনই মাশরাফি বিন মোর্তজার বলে তামিম ইকবালের হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন ওপেনার আনামুল হক বিজয়। ৪ উইকেট নেওয়ায় ম্যাচ সেরা হন সিলেট বোলার নাজমুল ইসলাম অপু।

দিনের দ্বিতীয় ম্যাচে ফরচুন বরিশালকে ৬৩ রানের বড় ব্যাবধানে হারালো কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। টস হেরে ব্যাট করতে নামে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। শুরু থেকেই বেশ আগ্রসী ভঙ্গিতে ব্যাটিং করতে থাকে দুই কুমিল্লা ওপেনার ক্যামেরুন ডেলপোর্ট এবং মাহমুদুল হাসান জয়। দলীয় ৩৩ রানে ব্যাক্তিগত ১৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার ক্যামেরুন ডেলপোর্ট। তবে উইকেটের এক প্রান্ত থেকে মোটামুটি দ্রুত গতিতে রান তুলতে থাকেন।

দলীয় ৪৭ রানে ফ্যাফ ডু প্লেসির উইকেট শিকার করেন বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। ডে প্লেসির পরে ক্রিজে আসেন কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স অধিনায়ক ইমরুল হাসান। শুরটা দারুণ হলেও, পুনরায় তার ভক্তদের ইচ্ছা পুরণ করতে পারেননি ইমরুল। আউট হয়েছেন ১৫ রানের ইনিংসে খেলে। ইমরুলে আউট হওয়ার পর দলকে এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন অভিজ্ঞ মোমিনুল হক এবং তরুণ মাহমুদুল হাসান জয়। তবে দলীয় ১১৫ রানে মাহমুদুল হাসান জয় আউট হলে ছন্দপতন ঘটে কুমিল্লার ইনিংসে। ইনিংসের শেষের দিকে কারিম জান্নাতের ১৬ বলে ২৯ রানের ক্যামিওতে ১৫৮ রানের সম্মানজনক পুজি পায় কুমিল্লা।

4 ক্রিকেট গুরুকুল, GOLN

১৫৯ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই হোচট খায় বরিশাল। উইকেটে বেশিক্ষণ টিকে থাকতে পারেননি বরিশাল অধিনায়ক সাকিব আল হাসানও। দলীয় ৭ রানেই প্যাভিলিয়নে ফিরে যান সাকিব। সাকিবের আউট হওয়ার পর বেশ কিছুক্ষণ উইকেটে টিকে থাকার চেষ্টা করেন ব্যাটার নাজমুল হাসান শান্ত। ব্যাটার নাজমুল হাসান শান্ত এবং তৌহিদ হাসান হৃদয় বরিশালের স্কোরকে সামনে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করলেও দলীয় ৩৪ রানে আউট হতে হয় তৌহিদ হাসান হৃদয়কে।

দলীয় ৪৫ রানে ক্রিস গেইল আউট হলে নিজেদের ইনিংসের খেই হারায় ফরচুন বরিশাল। দলের জন্য তেমন কিছু করতে পারেননি ব্যাটার নুরুল হাসান সোহান। বরিশালের ব্যাটিং বিপর্যয় আরো দৃঢ় হয় অলরাউন্ডার ডিজে ব্রাভো এবং জিয়াউর রহমান শূন্য রানে প্যাভিলিয়নে ফিরলে। উইকেটের আরেক প্রান্তে ব্যাটারদের আশা যাওয়ার মিছিল দেখছিলেন ওপেনার নাজমুল হাসান শান্ত। তবে বরিশালের ইনিংসের সমাপ্তি ঘটে মোস্তাফিজুর রহমানের বলে নাজমুল হাসান শান্তর আউট হওয়ার মাধ্যমে।বরিশালের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন নাজমুল হাসান শান্ত। কুমিল্লার পক্ষে সর্বোচ্চ ৩ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি ম্যাচ সেরা হন অফস্পিনার নাহিদুল ইসলাম।

 

ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা
ঢাকা বনাম সিলেট

 

আরও পড়ুন:

“বিপিএল ২০২২ : ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারিয়ে সিলেটের প্রথম জয় ; দিনের আরেক ম্যাচে সাকিবের বরিশালকে ৬৩ রানে হারিয়েছে কুমিল্লা”-এ 1-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন