ক্রিকেট খেলার ইতিহাস

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস : বিশ্বের জনপ্রিয় খেলাগুলোর মধ্যে অন্যতম খেলা হলো ক্রিকেট। বর্তমান বিশ্বে খুব দ্রুততার সাথে ছড়িয়ে পড়ছে এ ক্রিকেট। ক্রিকেট খেলার প্রচার এবং প্রসারে টি টোয়েন্টি ক্রিকেট খুব গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

যতদূর জানা যায়, ক্রিকেট খেলা শুরু হয়েছিলো ষোড়শ শতাব্দীর শেষদিকে। মূলতঃ দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যাণ্ডে শুরু হলেও অষ্টাদশ শতাব্দীতে এটি ইংল্যাণ্ডের জাতীয় খেলায় পরিণত হয় এবং ঊনবিংশ ও বিংশ শতাব্দীতে এটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ে। ১৮৪৪ সাল থেকে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ম্যাচ খেলা হলেও ইতিহাস স্বীকৃত টেস্ট ম্যাচ খেলা শুরু হয় ১৮৭৭ সালে। দর্শক সংখ্যার দিক দিয়ে ক্রিকেট, ফুটবলের ঠিক পরেই বিশ্বের দ্বিতীয় জনপ্রিয় খেলা হিসেবে স্বীকৃত। এই খেলার বিশ্বব্যাপী প্রশাসনের দায়িত্বে আছে একশোর বেশি সদস্যযুক্ত সংস্থা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কাউন্সিল যদিও এর মধ্যে শুধু বারোটি সদস্য দেশই টেস্ট ক্রিকেট খেলে।

 

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস
প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপের চিত্র

 

সম্ভবত স্যাক্সন অথবা নরম্যানদের সময়ে উইল্ড-এ বসবাসকারী শিশুরা ক্রিকেট খেলা চালু করেছিলো। উইল্ড দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যাণ্ডের কেন্ট এবং সাসেক্স[১]-এর মধ্যবর্তী একটি ঘন অরণ্য। ক্রিকেট খেলার সর্বপ্রথম স্পষ্ট উল্লিখিত তারিখ সোমবার, ১৭ই জানুয়ারি, ১৫৯৭ খ্রীস্টাব্দ (“পুরোনো পদ্ধতির” জুলিয়ান তারিখ; বর্তমান ক্যালেন্ডার অনুসারে ১৫৯৮ খ্রিস্টাব্দ)।

ক্রিকেটের উৎস সম্বন্ধে এছাড়া আরও অনুমান করা হয় যে এই খেলা ফ্রান্স অথবা ফ্লেন্ডার্সে শুরু হয়েছিলো। এই অনুমানের ক্ষেত্রে ক্রিকেট খেলার উল্লিখিত তারিখ বৃহস্পতিবার, ১০ই মার্চ, ১৩০০ খ্রীস্টাব্দ (জুলিয়ান তারিখ) এবং এটা ভাবা হয় যে পরবর্তীকালে রাজা দ্বিতীয় এডয়ার্ড “ক্রিগ এবং অন্যান্য খেলা”-য় খেলেছিলেন ওয়েস্ট্মিনস্টার এবং নিউএন্ডেন নামক দুটি জায়গায়।

[ ক্রিকেট খেলার ইতিহাস ]

মনে করা হয় যে, “ক্রিগ” হল ক্রিকেটেরই একটি পুরাতন ইংরাজি ভাষার শব্দ। কিন্তু বিশেষজ্ঞদের মতে এর আগে এটি ছিল “ক্রেইক (ইংরেজি craic)”, যার মানে “সার্বজনীন মজা এবং খেলা”।এটা বিশ্বাস করা হয় যে, সপ্তদশ শতাব্দীর প্রথমদিকে প্রাপ্তবয়স্কদের খেলা হয়ে ওঠার আগে পর্যন্ত বহু প্রজন্ম ধরে ক্রিকেট খেলা শুধু শিশুদের খেলা ছিল। সম্ভবত ক্রিকেট খেলা উদ্ভূত হয়েছিলো বোলস খেলা থেকে।

যেহেতু বোলস একটু পুরানো খেলা, তাই মনে করা হয় বলটিকে তার লক্ষ্যের আগে ব্যাটসম্যান ব্যাট দিয়ে থামিয়ে সেটিকে আঘাত করে দূরে পাঠানো থেকেই ক্রিকেট খেলার উৎপত্তি। খেলা শুরু হয় মেষ-চারিত কোনো মাঠ বা ফাঁকা জায়গায়, মূল সরঞ্জামের মধ্যে বল হিসাবে ব্যবহার করা হয় ভেড়ার দলা পাকানো পশম (বা এমনকি একটি পাথর অথবা একটি ছোটো কাঠের ডেলা); ব্যাট হিসাবে ব্যবহার করা হয় একট লাঠি বা একটি বাঁকা দণ্ড বা খামারবাড়ির কোনও যন্ত্র; উইকেট হিসাবে একটি বসার টুল বা গাছের গোড়ার শিকড় অথবা কোনো দরজা (যেমন একটি উইকেট দরজা)।

 

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস
প্রাচীনকালের ক্রিকেট

 

শিশুদের খেলা হিসেবে শুরু হয় ক্রিকেট। ষোড়শ শতাব্দিতে প্রথম ক্রিকেট খেলার অস্তিত্ব পাওয়া যায়। দক্ষিণ-পুর্ব ইংল্যান্ডের ভেড়া চারণ ভুমিতে প্রথম ক্রিকেট খেলা শুরু হয়েছিল। ক্রিকেট খেলার প্রথম সরঞ্জাম হিসেবে ব্যবহৃত হয়েছিল একটি লাঠি এবং ভেড়ার পশমের বল।
# রোববার সকালে যথারীতি চার্চে না গিয়ে দুই ব্যক্তি প্রথমবারের মতো ক্রিকেট খেলে ১৬১১ সালে এবং এ জন্য তাদের শাস্তি দেয়া হয়।
# ক্রিকেট শব্দটি এসেছে সনাতন ইংরেজি শব্দ ‘ক্রাইচ’ (সিআরওয়াইসিই) অর্থাৎ চার্চ এবং মধ্য হল্যান্ডের ওলন্দাজ শব্দ অর্থ স্টিক বা লাঠি থেকে।

ক্রিকেট আইন
# আনুষ্ঠানিকভাবে প্রথম ক্রিকেটের আইন লেখা হয় ১৭৮৮ সালে এবং ঐ সময়ের মধ্যে মিডল স্টাম্প এবং এলবিডব্লু’র মত শব্দগুলো চালু হয়। প্রথম ক্রিকেট দল মেরিলবোন ক্রিকেট ক্লাব(এমসিসি)। ১৭৯৩ সালে তারা লর্ডসের মাঠে প্রথম খেলতে নামে। ক্রিকেটের প্রথম ম্যাচ হিসেবে লর্ডসের ম্যাচটিই প্রথম নথিভুক্ত হয়।
# আন্তর্জাতিক কিংবা পেশাদার ক্রিকেট ম্যাচ খেলা প্রথম শুরু হয় দুই দেশের মধ্যে। যার যাত্রা শুরু হয় ১৮৪৪ সালে। বৃটিশ উপনিবেশগুলোর মাধ্যমে উত্তর আমেরিকায় ক্রিকেট খেলার প্রচলন শুরু হয়। বৃটিশ ইন্ডিয়া কোম্পানির ভারত অভিযানের পর থেকে ওরাই ভারত ও পার্শ্ববর্তী দেশগুলোতে ক্রিকেট চালু করে।

ক্রিকেট ব্যাট:

১৮৫৩ সালে প্রথম ক্রিকেট ব্যাট তৈরি হয়। মূল অংশ উইলি কাঠ, আর রবারে মোড়া বেতের হাতল দিয়ে এই ক্রিকেট ব্যাট তৈরি করা হয়। ব্যাট তৈরির প্রক্রিয়া হিসেবে প্রথমে ব্যাটটিকে হকিস্টিকের মতো বাঁকা করে আবার সোজা করা হয়, যাতে ব্যাটে বল নিক্ষিপ্ত হলে দ্রুত ছিটকে যায়।

ক্রিকেট বিশ্বকাপ :

 

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস
আইসিসির সদর দপ্তর

 

১৯০৯ সালে গঠিত হয় ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট এসোসিয়েশন(আইসিসি)। দক্ষিণ আফ্রিকা, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া এবং পরবর্তীতে ভারত, ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও অন্যান্য দেশ যুুক্ত করা হয়। প্রথম বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হয় ১৯৭৫ সালে।
# ১৯৭১ সালে অস্ট্রেলিয়ার মেলবোর্নে প্রথম সীমিত ওভার দিয়ে অর্থাৎ ওয়ানডে ক্রিকেট ম্যাচ খেলা হয়।
# পর পর পাঁচ দিন খেলার পরও একটা ক্রিকেট ম্যাচ ড্র হতে পারে। একটা ক্রিকেট মাঠের নির্দিষ্ট কোন আকার নেই, তবে পিচ সব সময় ২২ গজের।

 

ক্রিকেট খেলার ইতিহাস
প্রাচীনকালের ক্রিকেট

 

আরও পড়ুন:

“ক্রিকেট খেলার ইতিহাস”-এ 6-টি মন্তব্য

মন্তব্য করুন